বয়স্কদের স্বাস্থ্য পরিষেবা জোরদার করার পন্থা নিয়ে ভারত-জাপানের মধ্যে আলোচনা

বয়স্কদের স্বাস্থ্য পরিষেবা জোরদার করার পন্থা নিয়ে ভারত-জাপানের মধ্যে আলোচনা

নয়াদিল্লী || আন্তর্জাতিক বয়স্ক দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে আয়োজিত একটি ওয়েবিনারে বয়স্ক ব্যক্তিদের স্বাস্থ্য পরিষেবা জোরদার করা, বয়স্ক মানুষদের নিয়ে নতুন ভাবনা, গবেষণা, প্রদর্শন এবং এগুলি রূপায়ণে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার বিষয়ে ভারত এবং জাপানের বিশেষজ্ঞরা আলোচনা করলেন।

নয়া দিল্লির এইমস-এর ন্যাশনাল সেন্টার ফর এজিং-এর নোডাল অফিসার, গেরিয়াট্রিক দপ্তরের প্রাক্তন প্রধান অধ্যাপক এ বি দে বয়স্কদের স্বাস্থ্য পরিষেবায় জাতীয় কর্মসূচি, আয়ুষ্মান ভারতের মতো উদ্যোগের প্রসার এবং হু-র দীর্ঘমেয়াদী যত্নবিধির রূপায়ণের পরামর্শ দিলেন যাতে বয়স্ক মানুষদের স্বাস্থ্য পরিষেবা জোরদারে সাহায্য হয়।

ওয়েবিনারের আয়োজন করে ভারত সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি দপ্তর, টোকিও-য় ভারতীয় দূতাবাস এবং জাপান সরকারের অর্থনীতি, বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রক। পয়লা অক্টোবর ২০২০ আন্তর্জাতিক বয়স্ক দিবসে এটির উদ্বোধন করেন জাপানে ভারতের রাষ্ট্রদূত শ্রী এস কে ভার্মা।

জাপান সরকারের ক্যাবিনেট সচিবালয়ে স্বাস্থ্য এবং চিকিৎসা কৌশল বিষয়ক উপদেষ্টা ডঃ পাতসুইয়া কোন্ডো বলেন, মানুষের স্বাস্থ্য সুনিশ্চিত করলে জাতীয় সুরক্ষা সুনিশ্চিত হয়। তিনি শিক্ষা এবং বয়স্কদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বয়েস সম্পর্কে সঠিক ধারণা দেওয়ার ওপর জোর দেন। একইসঙ্গে আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য পরিষেবা অর্জনে একসঙ্গে কাজ করতে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক শক্তিশালী করার প্রয়োজনীয়তার কথা বলেন।

ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন ডিএসটি-র প্রধান শ্রী সঞ্জীব কে বার্ষণেয়ী বলেন, পুরো কাজটিকে গবেষণা এবং প্রয়োগ এই দু-ভাগে ভাগ করে ভারতে চিকিৎসা উৎকর্ষ অর্জনে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরদার করতে হবে।

টোকিও-য় ভারতীয় দূতাবাসের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পরামর্শদাতা ডঃ উষা দীক্ষিত বলেন, দুই দেশের মিলিত একটি মডেল গবেষণায় নতুন দিক আবিষ্কারের সুযোগ এনে দেবে। পাশাপাশি সর্বস্তরে বয়স্ক মানুষদের সার্বিক স্বাস্থ্য পরিষেবা দিতে নকশা এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উন্নয়নের প্রয়োজন আছে।

সীড ডিভিশনের প্রধান ডঃ দেবপ্রিয় দত্ত বয়স্ক মানুষদের স্বাস্থ্য এবং আর্থ-সামাজিক নিরাপত্তায় ভারত সরকারের নানা উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন এবং বয়স্ক মানুষদের স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে গবেষণায় এবং সহযোগিতামূলক প্রযুক্তির একটি কাঠামো পেশ করেন।

ওয়েবিনারে উপস্থিত ছিলেন ভারত সরকারের টোকিওর ভারতীয় দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত শ্রী সঞ্জয় কুমার ভার্মা, জাপান সরকারের অর্থনীতি, বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রকের স্বাস্থ্য পরিষেবা শিল্প বিভাগের অধিকর্তা শ্রী তাকুমা ইনামোরা, ডঃ নীনা রায়না, ডঃ হিরোমাসা ওকায়াসু, এবং অধ্যাপক ওয়াই এস রাজন প্রমুখ। এছাড়াও ভারত এবং জাপানের বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা গোষ্ঠী-আলোচনায় অংশ নেন ভারত এবং জাপানের মধ্যে সহযোগিতার সম্ভাবনা খুঁজতে।

Related Stories

The News Agency
www.thenewsagency.in